না ফেরার দেশে চলে গেলেন কথাসাহিত্যিক রাবেয়া খাতুন

3 weeks ago
8:18 pm
12
বাংলাদেশ জাতীয় না ফেরার দেশে চলে গেলেন কথাসাহিত্যিক রাবেয়া খাতুন

না ফেরার দেশে চলে গেলেন স্বাধীনতা পুরস্কার, একুশে পদক ও বাংলা একাডেমিসহ অসংখ্য পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক রাবেয়া খাতুন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। রোববার (৩ জানুয়ারি) বিকালে বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর।

পঞ্চাশের দশকে এই অঞ্চলের মুসলিম নারীদের জীবন যখন বিধি-নিষেধের বেড়াজালে বন্দী, ঠিক সেই সময় লেখক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন রাবেয়া খাতুন। গুণী এ সাহিত্যিকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও স্বজনদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ অ্যাডভোকেট ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এমপি।

১৯৩৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর ঢাকার বিক্রমপুরে মামা বাড়িতে জন্ম হয় রাবেয়া খাতুনের। তার বাবার বাড়ি মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর গ্রামে। ১৯৫২ সালের ২৩ জুলাই রাবেয়া খাতুন সম্পাদক ও চিত্রপরিচালক, বাংলাদেশের প্রথম শিশুতোষ চলচ্চিত্র ‘প্রেসিডেন্ট’-এর পরিচালক এটিএম ফজলুল হকের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। এ দম্পতির চার সন্তানরা হলেন- ফরিদুর রেজা সাগর, কেকা ফেরদৌসী, ফরহাদুর রেজা প্রবাল ও ফারহানা কাকলী।

রাবেয়া খাতুন লেখাপড়ার পাশাপাশি শিক্ষকতা ও সাংবাদিকতা করেছেন। তিনি পঞ্চাশটিরও বেশি উপন্যাস লিখেছেন। ১৯৬৩ সালে প্রথম উপন্যাস প্রকাশ হলে কথাসাহিত্যিক হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন গুণী এই নারী। তিনি সাহিত্য চর্চার জন্য একুশে পদক (১৯৯৩), বাংলা একাডেমি পুরস্কার (১৯৭৩) সহ অসংখ্য পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন।