আগের চেয়ে বেশি দামে কিনতে হবে এসব পণ্য

1 week ago
3:46 pm
61
বাংলাদেশ অর্থ ও বাণিজ্য আগের চেয়ে বেশি দামে কিনতে হবে এসব পণ্য

“আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে কিছু পণ্যের করহার বাড়ানো হয়েছে। এ হার পাস হলে আগামী অর্থবছর পুরো সময়ে এসব পণ্য কিনতে হবে আগের চেয়ে বেশি দামে। যদিও বর্তমান নীতিমালা অনুযায়ী, বাজেটে শুল্ককরের প্রস্তাব ঘোষণার পরই কার্যকর হয়। ফলে বাজেটে শুল্ককর বাড়ানোর প্রস্তাবটি ঘোষণার পরপরই কার্যকর হয়। তাই আজ থেকে কার্যকর হচ্ছে পণ্যের দাম।

মদ-বিয়ার আমদানিতে বাজেটে ২০ শতাংশ অগ্রিম আয়কর আরোপ করা হয়েছে বিধায় ভবিষ্যতে মদ-বিয়ারের দাম বাড়তে পারে।…সম্পূরক শুল্ক না বাড়ালেও প্রিমিয়াম কোয়ালিটির সিগারেটের মূল্যস্তর বাড়ানো হয়েছে। তাই এ ধরনের সিগারেটের দাম বাড়তে পারে আগামী অর্থবছরে। পরিবেশক ও ডিলারদের নিট কমিশনের ওপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করায় টাইলস ও স্যানিটারি ওয়্যারের দাম কিছুটা বাড়তে পারে।

এমিউজমেন্ট পার্ক স্থাপনের রাইডসামগ্রীর ওপর ২০ শতাংশ সম্পূরক শুল্কারোপ করায় শিশুদের বিনোদনকেন্দ্র স্থাপনের খরচ বাড়তে পারে। গাজর ও মাশরুম আমদানিতে শুল্ক হার বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।…সে সঙ্গে গাজর, মাশরুম, কাঁচামরিচ, টমেটো, কমলা ও ক্যাপসিকামের ন্যূনতম শুল্কায়নযোগ্য মূল্য নির্ধারণের প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে এসব পণ্যের দাম বাড়তে পারে।

শিল্প লবণ আমদানির ক্ষেত্রে বিদ্যামান শুল্কহার বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। সে সঙ্গে প্রক্রিয়াজাত করা মাংস আমদানিতে শুল্কহার বৃদ্ধি ও ন্যূনতম শুল্কায়নযোগ্য মূল্য নির্ধারণ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।… ফলে দাম বাড়তে পারে। বাজেটে কিছু পণ্যের শুল্ক-করহার বাড়ানো হয়েছে। এতে এসব পণ্যের দাম বাড়তে পারে। উল্লেখ্য, বাজেটে শুল্ককরের যে প্রস্তাব দেয়া হয়েছে তা ঘোষণার পরই কার্যকর হয়।

বাজেটে মুঠোফোন (ফিচার ফোন) আমদানিতে আমদানি শুল্ক ১০ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করা হয়েছে। মাংস আমদানিতে শুল্কহার বাড়ানো হয়েছে। বসানো হয়েছে ১৫ শতাংশ হারে ভ্যাট। আবার ন্যূনতম শুল্কায়ন মূল্যের প্রস্তাব করা হয়েছে।… এতে বিদেশি মাংসের দাম বাড়বে। দেশীয় খামারিদের সুরক্ষা দিতে কাজটি করেছে সরকার। বিদেশি মাশরুমের দাম অনেকটাই বাড়তে পারে। মাশরুম আমদানিতে আমদানি শুল্ক পাঁচ থেকে বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হয়েছে। পাশাপাশি মাশরুম আমদানিতে ন্যূনতম শুল্কায়ন মূল্য আরোপের কথা বলা হয়েছে।

কৃষকদের সুরক্ষা দিতে গাজর, ক্যাপসিকাম, কাঁচামরিচ, টমেটো ও কমলা আমদানিতে ন্যূনতম শুল্কায়ন মূল্য আরোপের কথা বলা হয়েছে।…এতে এসব পণ্য আমদানিতে কম দাম দেখিয়ে শুল্ক ফাঁকি দেয়া যাবে না। শিল্প লবণের ওপর কর বাড়ানো হয়েছে। এত দিন শিল্প লবণের নামে ভোজ্য লবণ আমদানি হতো। এখন দুই লবণের করহারের সমন্বয় করা হয়েছে। সম্পূরক শুল্ক ২০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৪৫ শতাংশ করা হয়েছে। এতে দাম বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

চুইংগামের ওপর সম্পূরক শুল্ক ২০ থেকে বাড়িয়ে ৪৫ শতাংশ করা হয়েছে। ফলে দাম বাড়বে এ পণ্যের। বিদেশি বিস্কুট ও সমজাতীয় সুগার কনফেকশনারির ওপর সম্পূরক শুল্ক ২০ বাড়িয়ে ৪৫ শতাংশ করা হয়েছে। এতে দাম অনেকটা বাড়তে পারে। আমদানি শুল্ক বাড়ানো হয়েছে বিদেশি রড ও সমজাতীয় পণ্যের, এতে দাম বাড়তে পারে। অবশ্য রডের বাজার দেশীয় কোম্পানির দখলে রয়েছে।”…