স্মারকলিপি প্রদান করল শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্মচারীরা

2 months ago
2:48 pm
383
দেশজুড়ে ঢাকা স্মারকলিপি প্রদান করল শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্মচারীরা

কিশোরগঞ্জ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আউটসোর্সিং পদ্ধতিতে নিয়োগকৃত ও দীর্ঘদিন যাবৎ কমর্রত ১৫২ জনকে কর্মচ্যুত করার প্রতিবাদে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করছে পদবঞ্চিত কর্মচারীরা। এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার (২৫ জুলাই) সকালে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন তারা।

স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন, মাসুদুর রহমান রানা, মাহমুদ হাসান জিসমান, আর.এফ মাহমুদ, আসাদুল ইসলাম, মিলন মিয়া, সৈয়দ আরিফুল ইসলাম, আলামিন মিয়া প্রমুখ।

স্মারকলিপিতে তারা উল্লেখ করেন, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৫২ জন করোনা যোদ্ধাকে বিনা নোটিশে ৭ মাসের বেতন বকেয়া রেখেই কর্মচ্যুত করা হয়েছে। যেখানে হাসপাতালে আউটসোর্সিং জনবল দরকার ৪১৪ জন। সেখানে কর্মরত ছিল ২১৬ জন। এখন হাসপাতাল কতৃপক্ষ ১৫৫ জনকে অনুমোদন দিয়েছে। আমাদের ১৫২ জন বাদ দিয়ে নতুন করেন ৯১ জন লোক নিয়োগ দিবে। ১৩ মাসের বেতন পাইনি। তার মধ্যে ৬ মাসের বেতন দিয়ে ৭ মাসের বেতন বকেয়া রেখে আমাদেরকে ছাটাই করা হলো। হাসপাতালে ১৬ হাজার টাকা বেতনের কর্মচারী ছিলাম। অথচ এ টাকা কখনও পুরোটা পাইনি। এমনকি ঈদ বোনাসও দেয়া হয়নি। তবুও আমরা করোনা রোগীদের সেবা দিয়ে গেছি। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের আকুল আবেদন সবকিছু বিবেচনা করে আপনি ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করবেন।

উল্লেখ্য যে, পদবঞ্চিত কর্মচারীরা বিভিন্ন প্রতিবাদ কর্মসূচীতে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অনিয়ম, দুর্নীতি, চিকিৎসক সংকট ও সেবা প্রত্যাশী জনগনকে অযথা হয়রানি এবং হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসকগণের মালিকানাধীন ক্লিনিকে রোগীগণ সেবা না নিলে তাদেরকে চিকিৎসা করানো হয় না বলে তাদের বক্তব্যে অভিযোগ তোলেন। তাছাড়াও করোনা রোগীদের চিকিৎসার নামে হয়রানি করা হচ্ছে। তাই অবিলম্বে এসব হয়রানি দূর ও আউটসোর্সিং কর্মচারীগণকে স্থায়ী নিয়োগের মাধ্যমে পুর্নবাসন করার দাবি জানান।