পূর্ণিমার নাচে প্রাণ ফিরল এফডিসিতে

1 week ago
8:44 pm
9
বিনোদন ঢালিউড পূর্ণিমার নাচে প্রাণ ফিরল এফডিসিতে

তখন সন্ধ্যা পেরিয়ে রাতের গায়ে হেলান দিয়েছে। এফডিসিতে প্রবেশ করতেই দূর থেকে কানে ভেসে এলো উচ্চস্বরে গানের আওয়াজ। বুঝতে পারলাম, করোনায় আস্তাকুঁড়ে পড়ে থাকা এফডিসি প্রাণ ফিরে পেয়েছে! কৌতূহলী হয়ে সামনে এগোতেই গানের কথা স্পষ্ট শোনা গেল— ‘চোখ ঘুরাইয়া তাকালে সবাই হয় রে কাত, ওরা কী করে আমার সাথে কাটাবে এই রাত’।

আঁচ করলাম, ৯ নম্বর ফ্লোর থেকে ভেসে আসছে এই সুর। সাত-পাঁচ না ভেবে ঢুঁ মারলাম ফ্লোরে। সেটে সহকারী নৃত্যশিল্পীরা রিহার্সেলে ব্যস্ত। পাশে বসে আছেন পূর্ণিমা, ফেরদৌস, তারিক আনাম খান ও পরিচালক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল।

পরিচালক জানালেন, ‘গাঙচিল’ সিনেমার আইটেম গানের শুটিং হচ্ছে। শুক্রবার শুরু হওয়ার দৃশ্যধারণ কাজের রোববার শেষ দিন।

নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল বলেন, “নোয়াখালীর চরের সেট ফেলে শুটিং করা হচ্ছে। সেট এমনভাবে করেছি যেন বোঝা না যায়, এটি এফডিসির ভেতর করা। তিন দিন ধরে শুটিং করছি। সবাই খুব ভালো করছেন।”

তিনি জানান, কবির বকুলের কথায় আইটেম গানটির সংগীত পরিচালনা করেছেন ইবরার টিপু। কোরিওগ্রাফি করেছেন মাসুম বাবুল। তবে এখনো গানটিতে কেউ কণ্ঠ দেননি। ডামি ভয়েস দিয়ে শুটিং চলছে আপাতত।

এদিকে অনেক দিন পর আইটেম গানে পারফর্ম করছেন পূর্ণিমা। সে কারণে বেশ উচ্ছ্বসিত দেখা গেল তাকে। তিনি বলেন, “আগে মিশা সওদাগরের সঙ্গে অনেক আইটেম গানে নেচেছি। খুব মজা করে কাজ করতাম তখন। এখন আবার আইটেম গান করতে এসে সেই দিনের কথা মনে পড়ে যাচ্ছে।”

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আগে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেই দৃশ্যে এই গানটি ব্যবহার করা হবে বলে জানান পূর্ণিমা।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ‘গাঙচিল’ উপন্যাস অবলম্বনে সিনেমাটি নির্মাণ হচ্ছে। ২০১৯ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি শুরু হয় সিনেমার শুটিং। এখনো চলছে ছবির দৃশ্যধারণের কাজ। বাকি আরো দুটি গান।

শুটিং ফ্লোর থেকে বেরিয়ে আসার আগে পরিচালকের কাছে ছবি মুক্তির সময় জানতে চাইলে তিনি কোনো তারিখ বলতে পারেননি। জানালেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ভালো দিনে ছবিটি মুক্তি দেবেন।