সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ না থাকার কারণে পিছিয়ে পড়েছেন

3 months ago
1:42 pm
59
অন্যান্য খোলামত সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ না থাকার কারণে পিছিয়ে পড়েছেন



মৌলিক কাজের জন্য প্রয়োজন সময়, মনোযোগ এবং পরিশ্রম। এর পাশাপাশি কৌতূহল এবং জানার আগ্রহ।



দেশ ও সমাজের প্রয়োজনে সাধারণ মানুষ বা অন্য পেশাজীবীরা যা করতে পারেন না সাংবাদিকেরা তা পারেন। অর্থাৎ সাংবাদিকদের হাতে রয়েছে অনেক ক্ষমতা। সাংবাদিকতা একটা নীতি নৈতিকতা বোধ সম্পন্ন পেশা, যা মর্যাদাসম্পন্ন। সাংবাদিকরা বিপদে মানুষকে সাহায্য করতে পারেন, পারেন সমাজের যে কোন অন্যায় অসংগতির প্রতিবাদ করতে।



কথায় আছে, ‘গরম ভাতে বিড়াল বেজার, উচিত কথায় বন্ধু বেজার৷’ সাংবাদিকদের কাজই হলো প্রকৃত খবরটা জানানো৷ তো খবরটি যাঁর বিরুদ্ধে, তিনি বেজার হবেন – এটাই স্বাভাবিক৷



সাংবাদিকতার মানেই হচ্ছে মানুষকে নতুন কিছু বলা।বাংলাদেশের সাংবাদিকতা কিন্তু মফস্বলে, অজপাড়াগাঁয়েই। আধুনিক শহুরে চাকচিক্যময় সাংবাদিকতার ভিত্তি কিন্তু এই গ্রামবাংলায়। হতে পারে শহরে-রাজধানীতে অনেক বেশি । তবে এই বাংলাদেশ শুধু রাজধানী কেন্দ্রিক নয়। অন্যান্য জেলা-উপজেলা-গ্রাম মিলিয়েই সমগ্র বাংলাদেশ। গ্রামের কৃষক ফসল না ফলালে রাজধানীবাসী ও শহুরে নাগরিকগণ অনাহারে থাকবেন, আবার এই ফসলের বাজারজাতকরণও যদি না হয় সঠিকভাবে তাহলে কৃষকও টিকতে পারবেন না। তাই একে অপরের পরিপূরক।



ওই যে একটি প্রবাদ আছে ‘নিজ ভালো তো জগৎ ভালো’। যারা সাংবাদিকতা পেশায় জড়িত তারা নিজেরা বোধহয় নিজেদের ভুল বা অন্যায়টি বোধহয় দেখতে পারেন না বা সহ্য করতে পারেন না



লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে লাল সবুজের পতাকা ও স্বাধীনতা পেয়েছি আমরা, কিন্তু বেঈমান ও কিছু দুষ্টু লোকের কারণে মানবতার কল্যাণে কাজ করা কঠিন হয়ে পড়েছে।

দেশে কয়েক হাজার সংবাদ মাধ্যমের মধ্যে টেলিভিশন, জাতীয় পত্রিকা, সাপ্তাহিক, পাক্ষিক, মাসিক ও অনলাইন পোর্টাল সহ বিভিন্ন সংবাদপত্র রয়েছে, সেখানে লক্ষাধিক সংবাদ কর্মী এবং স্টাফ কাজ করছেন। আইনজীবী, পুলিশ, সাংবাদিক ও জনপ্রতিনিধিসহ সকল পেশায় কিছু বেঈমান ও দুষ্টু প্রকৃতির লোক থাকে, তারা মানুষের সাথে প্রতারণা করার কারণে প্রকৃত ভালো মানুষের বদনাম হচ্ছে।



যারা দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করছেন, একটু চিন্তা করে দেখেন, তারাই বেশি ক্ষয়ক্ষতির শিকার হচ্ছেন।

সংগঠন আর সংগঠন, নতুন করে আলাদা ভাবে সাংবাদিকদের নিয়ে সাংবাদিক সংগঠন করেছে কিছু সাংবাদিক কিন্তু তাদের মধ্যে বেশিরভাগ সাংবাদিকের ঐক্যবদ্ধ না থাকার কারণে পিছিয়ে পড়েছেন । একজন অন্যজনের বিরুদ্ধে কাজ করছে বাড়ছে বিবাদ ও শক্রতা।



সাংবাদিকরাই আজকাল বেশি কষ্টে আছেন। জনগণের কল্যাণে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালন করেও এর বিনিময় কি পাচ্ছেন সাংবাদিকরা? নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন অনেক সাংবাদিক। বিভিন্ন হয়রানি মূলক মামলার শিকার হচ্ছেন অনেকেই।



আমি ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি, একজন সাংবাদিক সমাজকে অনেক কিছু দিতে পারে। আবার একজন সাংবাদিকের কারণে সমাজে অনেক অঘটন ঘটতে পারে।

লেখকঃ খন্দকার জসিম উদ্দিন