বঙ্গবন্ধুর ডাকে সর্বপ্রথম পুলিশই মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়- পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ

4 weeks ago
6:49 pm
21
পজিটিভ বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর ডাকে সর্বপ্রথম পুলিশই মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়- পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ

কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ডাকে সর্বপ্রথম পুলিশই মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়। দেশপ্রেমে পুলিশ শত্রুদের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। আমরা বাঙালি জাতি। এদেশের মানুষের জন্য পুলিশ জীবন দিয়েছে এবং দিচ্ছে। দেশের জন্য দেশের মানুষের জন্য পুলিশ জীবন দিতে প্রস্তুত।

বৃহষ্পতিবার (২৫ মার্চ) বিকালে পুলিশ সুপার কাযার্লয়ের সম্মেলন কক্ষে শহীদ পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা ও কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত পুলিশ সদস্যদের পরিবারের মাঝে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মাশরুকুর রহমান খালেদ বলেন, কর্তব্যরত অবস্থায় জীবন উৎসর্গকারী পুলিশ সদস্যদেরকে প্রতি বছর ১ মার্চ আনুষ্ঠানিকভাবে ‘পুলিশ মেমোরিয়াল ডে’ পালনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ পুলিশ স্মরণ করে থাকে। তাদের পরিবারের সদস্যদের যে কোনো প্রয়োজনে কিশোরগঞ্জ পুলিশ পাশে আছে এবং থাকবে।

পুলিশ সুপার বলেন, রাজারবাগ থেকেই বাঙ্গালী পুলিশ সদস্যরা প্রথম প্রতিরোধ রচনা করেছিলেন। পুলিশ সদস্যরা বেতার যন্ত্রের মাধ্যমে ঢাকা আক্রান্ত হওয়ার বার্তা সারাদেশের থানাগুলোতে প্রেরণ করলে প্রতিরোধ যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়ে সারাদেশে।

জেলা পুলিশের আয়োজনে এবং জেলা পরিষদের সহযোগিতায় চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ জিল্লুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ আফজল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অর্ণিবান চৌধুরী, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বাচ্চু, সাংবাদিক সাইফউদ্দীন আহমেদ লেনিন, সাজন আহম্মেদ পাপন প্রমুখ। চেক বিতরণ অনুষ্ঠানটি পরিচালনায় ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান।

আলোচনা শেষে জেলা পরিষদের সহযোগিতায় জেলার মোট ৩৭ জন শহীদ পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা ও কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত পুলিশ সদস্যদের পরিবারের প্রত্যেকের মাঝে ৫হাজার টাকার চেক প্রদান করেন অতিথিরা।